Goodman Travels

অসহায়দের পাশে শিক্ষার্থী সহযোগিতা সংগঠন

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ-বছর পাঁচেক আগের কথা পাবনার বেড়া উপজেলার ঐতিহ্যবাহী বেড়া বিপিন বিহারী উচ্চবিদ্যালয়ের সপ্তম ও অষ্টম শ্রেণির সাত-আট শিক্ষার্থী সিদ্ধান্ত নেয় টিফিনের টাকা বাঁচিয়ে তা মানবকল্যাণে কাজে লাগাবে। সেই থেকে শুরু। একপর্যায়ে ওদের সঙ্গে যোগ দেয় বেড়া পৌর এলাকার আরও কয়েকটি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা। সবাই মিলে গঠন করে ‘শিক্ষার্থী সহযোগিতা সংগঠন’ নামের একটি মানবকল্যাণমুখী সংস্থা।

সংগঠনটি এই সময়ের মধ্যে তারা বহু অসহায় মানুষের পাশে দাড়িয়েছে।দিনে সংগঠনের কার্যক্রম বেড়েই চলেছে।নিজেদের জমানো টিফিনের টাকা ও হৃদয়বান মানুষের কাছ থেকে পাওয়া সহায়তা মিলিয়ে ওদের সংগঠনের তহবিল মজবুত হতে শুরু করেছে। এই তহবিল নিয়ে তারা এখন করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে অসহায় হয়ে পড়া মানুষের পাশে খাদ্য ও চিকিৎসাসামগ্রী নিয়ে গিয়ে দাঁড়াচ্ছে।

করোনাকালে সংগঠনটির সদস্যরা ২৮ জুলাই নতুন একটি দৃষ্টান্ত কাজ স্হাপন করেছে। তারা পাবনা বেড়া উপজেলায় প্রায় ২৫০ জন দুস্ত মানুষের মাঝে চাল,ময়দা,সাবান,মাস্ক বিতরণ করে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে।

সংগঠনের সদস্যরা জানায়,”দুঃখের সময় যদি মানুষের পাশে দাড়াতে না পারি তাহলে সুখের সময় মানুষের পাশে থেকে লাভ কি” শ্লোগান সামনে রেখে তারা অসহায় মানুষের মাঝে চাল,ময়দা,সাবান,মাস্ক বিতরণ করে।

তাদের এই মহতি কাজে প্রধান অতিথি ছিলেন ;শেখ জিল্লুর রহমান (বেড়া সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার)

বিশেষ অতিথি ;খবির উদ্দিন( উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার, বেড়া, পাবনা)

ওবায়দুল হক(চেয়ারম্যান এ.বি.এম. ইন্টারলাইনিংস লিঃ)

ইমামুল হোসেন ইমাম (চেয়ারম্যান,মেডিসিটি (প্রাঃ) হাসপাতাল এন্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টার)

সভাপতিত্ব করেন ;ওমর আলী সরকার, উপদেষ্টা, শিক্ষার্থী সহযোগিতা সংগঠন।

আয়োজনে ;মেহেরাব হোসেন জিম, সভাপতি, শিক্ষার্থী সহযোগিতা সংগঠন

পরিচালনায় ; কবিরুল হাসান বারী, উপদেষ্টা, শিক্ষার্থী সহযোগিতা সংগঠন।এই প্রোগ্রামে সার্বিক সহযোগিতায় ছিলেন মেডিসিটি (প্রোঃ) হাসপাতাল এন্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টার।আরও উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের সদস্যরা মেহেরাব হোসেন জিম, জীবন, রাকিব,তৌহিদ, মেঘলা,সুলতানা,হিমেল,বাধন,,হাসান,আনিস, পল্ল,সাজিদ।

শেখ জিল্লুর রহমান বলেন, আমি এই রকম মহতি কাজে তোমাদের সাথে আছি। তোমরা কাজ করে যাও আমি আমার দিক দিয়ে তোমাদের যতটুকু পারি সাহায্য করার চেষ্টা করব।

ইমামুল হোসেন ইমাম বলেন, আমি অসহায় মানুষের পাশে আছি তোমরা কাজ করে যাও আমকে তোমাদের পাশে পাবে।

ওমর আলী সরকার বলেন, আমি অনেক দিন ধরে এই সংগঠনের সাথে আছি তারা অসহায় মানুষের পাশে মাঝে মাঝে দাড়ায়। তাদের কাজ সত্যি অতুলনীয়।

কবিরুল হাসান বারী বলেন,আমি এদের দেখি আর অবাক হই। এরা ছোট হয়েও অনেক বড় মানুষের মতো কাজ করে।আমি এদের পাশে আছি এবং থাকবো।

সংগঠনের সার্বিক ভাবে সাহায্যকারী ফরহাদ আলী বলেন,এই সংগঠনে আমি আছি অনেক দিন।তবে তাদের সাথে থেকে বুঝতে পারলাম এই সংগঠনের প্রতিটা সদস্যরা অসহায় মানুষ প্রেমীক।একজন অসহায় মানুষের পাশে এরা যেভাবে এগিয়ে যায় তা আসলে বলা বাহুল্য।

সংগঠনের সভাপতি মেহেরাব হোসেন জিম বলেন, আমরা মানুষের পাশে আছি এবং থাকতে চাই।আমাদের সংগঠনের সদস্যরা আমাকে সকল দিক থেকে সহায়তা করে।আমাদের সংগঠনের সদস্যদের নিরলস কাজের কারণে আমরা সংগঠনটাকে এতো দূর নিয়ে যেতে পেরেছি।